ঢাকা সোমবার, ২৯শে নভেম্বর ২০২১, ১৬ই অগ্রহায়ণ ১৪২৮


ভোলাহাটে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও চেয়ারম্যানের ছবি ও কার্যালয়ে হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার


প্রকাশিত:
১৬ অক্টোবর ২০২১ ১৪:৪৩

আপডেট:
২৯ নভেম্বর ২০২১ ০৮:৪৬

নিউজ ডেস্কঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার দলদলী ইউনিয়ন পরিষদে হামলা চালিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি, চেয়ার টেবিলসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাংচুর করায় ঘটনার রাতেই সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে ৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার মুশরীভূজার মৃত জোহরদি মোহাম্মদ মতি (৩৬), পুরাতন বারুইপাড়ার মৃত ইসরাইলের ছেলে মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম (৪৬) একই এলাকার মৃত ইসরায়েলের ছেলে ইউসুফ আলী (৫০), পুরাতন বাড়ৈপাড়ার নাজির হোসেনের ছেলে নারুল হক(১৮)।

একই এলাকার আসাদুল হকের ছেলে রাসেল আলী (২০), মুশরীভূজার আয়নাল হকের ছেলে তাইস উদ্দিন (৩৩), আসাদুল হকের ছেলে আশিক আলী(১৮), ঘাইবাড়ির রবজুল হকের ছেলে নিপুল ইসলাম (৩০) ও পুরাতন বারুইপাড়ার মৃত ইয়াসিন মোল্লার ছেলে আব্দুল জলিল (৪২)।

১৫ অক্টোবর রাত ৮টার সময় ২০/২৫ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী লাঠি সোটা নিয়ে এ হামলা চালায়। হামলায় চেয়ারম্যানের কক্ষে প্রবেশ করে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও চেয়ারম্যানের ছবি, চেয়ার টেবিল টেলিভিশন পানির লাইনসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাংচুর করেছে সন্ত্রাসীরা।

এ সময় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আরজেদ আলী ভুটু অফিস কক্ষ থেকে পালিয়ে আত্মরক্ষা করেন।

এ ব্যাপারে আরজেদ আলী ভুট্টু ১৬ অক্টোবর শনিবার জানান, ৮ নম্বর ওয়ার্ডের চুরিওয়ালার মোড়ে সরকারী জায়গায় অবৈধ ভাবে একটি ক্লাব ঘর ইট দিয়ে নির্মাণ করছিল। খবর পেয়ে গ্রাম পুলিশ পাঠিয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধ করা হয়। ফলে রাত ৮টার দিকে খলিলুর রহমান আমাকে ফোন করে অফিসে থাকতে বলে।

পরে তাঁর নেতৃত্বে ২০/২৫ জনের সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী দল ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে প্রবেশ করে। তাদের দেখে আমি আত্মরক্ষার জন্য ৩ তলায় উঠে যায়। আমার অফিসে অবৈধ ভাবে লাঠি সোটা হাতে নিয়ে হামলা চালিয়ে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও আমার ছবি চেয়ার টেবিল টেলিভিশন পানি সরবরাহের ট্যাপসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আইনী সহায়তা নেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় খবর পেয়ে গোমস্তাপুর সার্কেলের এএসপি মো. শামসুল আরেফিন, ভোলাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মো. মাহবুবুর রহমান ঘটনাস্থল রাতেই পরিদর্শন করেন।

ওসি মো. মাহবুবুর রহমান জানান, এ ঘটনায় ৩০/৩৫ জনের নাম উল্লেখ্যসহ আরও অজ্ঞাত জনের নামে মামলা হয়েছে। পরে রাতেই অভিযান চালিয়ে ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। আসামিদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে ভোলাহাট থানা পুলিশের অভিযান চলছে বলে জানান ওসি মাহবুবুর রহমান।

 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: