ঢাকা সোমবার, ১৫ই আগস্ট ২০২২, ১লা ভাদ্র ১৪২৯


এম ইব্রাহিম হোসেন বিজয়

একজন রেডিওলজিস্ট এর ক্যারিয়ার!


প্রকাশিত:
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৬:৩১

আপডেট:
১৫ আগস্ট ২০২২ ০৮:১০

শিক্ষা ডেস্ক: পৃথিবীর সবচেয়ে দামী কয়েকটি চাকরির মধ্যে রেডিওলজি অন্যতম। কারণ, স্বাস্থ্য খাতে প্রতিনিয়তই নতুন নতুন ক্লিনিক, চিকিৎসা পদ্ধতি, হাসপাতাল এবং অন্যান্য মেডিক্যাল ইক্যুইপমেন্ট তৈরি হচ্ছে। স্বাস্থ্য খাতের অতিরিক্ত চাহিদার কারণে রেডিওলজিস্ট হিসেবে বহুসংখ্যক পদ শূণ্য থেকে যাচ্ছে।

আপনি হয়তো স্বাস্থ্য খাতের সাথে সম্পৃক্ত নতুন কোনো চাকরি খুঁজছেন কিংবা পুরোনো চাকরি ছেড়ে নতুন কোনো চাকরির দিকে এগুতে চাচ্ছেন, সেক্ষেত্রে রেডিওলজিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়াটা বর্তমান সময়ের জন্য উপযুক্ত।

চলুন জেনে আসি, কীভাবে একজন রেডিওলজিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব:

একজন রেডিওলজিস্ট কী কী কাজ করে থাকেন?

স্বাস্থ্য খাতে ক্লিনিক বা হাসপাতালভেদে, একজন রেডিওলজিস্টকে যেসব কাজ করতে হয় সেগুলো হচ্ছে:

  • বিভিন্ন ধরণের টেস্টিং করা ও সেই টেস্টের রিপোর্ট তৈরি করা।
  • মেডিক্যাল টেস্টের ফলাফল ইন্টারপ্রেট করা।
  • রোগীদের ডায়াগোনাইজ করা।
  • রোগের অবস্থা ও লক্ষণ দেখে, রোগীকে সঠিক ডাক্তারের ঠিকানা রেকোমেন্ড করা।
  • রোগীদের মেডিক্যাল হিস্টোরি নিয়ে গবেষণা করা।
  • মেডিক্যালে, রোগ নির্নয়ের জন্য ব্যবহৃত যন্ত্রপাতির সঠিক ব্যবহার করা।
  • মেডিক্যালের অন্যান্য ডাক্তার ও কর্মকর্তাদের সাথে রোগী, প্রযুক্তি, অফিস প্রটোকল এবং রেগুলেশন নিয়ে মিটিং করা।
  • এমআরআই, এক্সরে ও আলট্রাসনোগ্রাফি নিয়ে অন্যান্য ডাক্তারদের সাথে পরামর্শ করা।
  • বিভিন্ন টেকনিক্যাল সমস্যায় নির্দিষ্ট কর্মকর্তাকে জানানো।
  • রোগীর নিরাপত্তায় এনফোর্সিং ইন্ডাস্ট্রি, সরকারি ও অফিস স্ট্যান্ডারাইজড প্রসিডিউর মেইনটেন করা।
  • বিভিন্ন স্বাস্থ্য সম্পর্কিত ট্রেইনিং, অনুষ্ঠান ও কোলাবোরেশনে অংশগ্রহণ করা।

 

একজন রেডিওলজিস্টের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

একজন রেডিওলজিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করাটা অনেকের জন্যই স্বপ্নের মতো। তবে সরাসরি রেডিওলজিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে না পারলেও সিটি টেক, ক্যাট স্ক্যান টেকনোলজিস্ট অথবা এমআরআই টেকনিশিয়ান হিসেবে যেকোনো মেডিক্যাল বা ক্লিনিকে আপনার ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন।

তারপর আল্ট্রাসাউন্ড টেকনিশিয়ান, ডায়াগনিস্টিক মেডিক্যাল সনোগ্রাফার, রেডিওলজি টেকনিশিয়ান, রেডিওলজি টেকনোলজিস্ট অথবা রেডিওগ্রাফার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে পারেন। উপরোক্ত পদ থেকে যেকোনো একটিতে ক্যারিয়ার গড়তে পারলেই সিনিয়র লেভেলে রেডিওলজিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়া সহজ হয়ে যাবে।

একজন রেডিওলজিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে, আপনাকে যেসকল বিষয়ে পারদর্শী হতে হবে:

  • অ্যানাটমি, ফিজিওলজি ও প্যাথোলজি সম্পর্কে জানতে হবে।
  • জেনারেল মেডিসিন ও সার্জারী সম্পর্কে যথেষ্ট দক্ষ হতে হবে।
  • বিভিন্ন রোগ ও এর লক্ষণের উপর ক্লিনিক্যাল নলেজ থাকতে হবে।
  • পেশেন্ট পেইন লেভেল, ফিজিশিয়ান ইন্টারভেনশন ও পেশেন্ট ইভালুয়েটিং সম্পর্কে যথেষ্ট দক্ষ হতে হবে।
  • ডায়াগনস্টিক প্রসেসিং, এক্সরে প্রসেসিং ও এমআরআই স্ক্যানিং করায় দক্ষ হতে হবে।
  • বিভিন্ন ধরণের মেডিক্যাল কন্ডিশন ও রোগের ইমেজ ডায়াগোনাইজ, ট্রিট ও ম্যানেজ করায় পারদর্শী হতে হবে।
  • মেডিক্যাল ও নন মেডিক্যাল ইক্যুইপমেন্ট সম্পর্কে জানতে হবে।
  • রেডিওলজি টেকনিক ও স্ট্র্যাটেজি সম্পর্কে যথেষ্ট দক্ষতা থাকতে হবে।
  • ডায়াগনিস্টিক রেডিওলজি ও ইন্টারভেনশনাল রেডিওলজির উপর পারদর্শী হতে হবে।
  • কম্পিউটার টমোগ্রাফি স্ক্যান বা সিটি স্ক্যান, ফ্লুরোস্কপি, ম্যাগনেটিক রেজোনেন্স ইম্যাজিং বা এমআরআই,
  • আল্ট্রাসাউন্ড এবং এক্সরের উপর কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।


উপরের দক্ষতাগুলো ছাড়াও, একজন রেডিওলজিস্টের কিছু সাধারণ দক্ষতা থাকা উচিৎ। সেগুলো হচ্ছে:

  • বিভিন্ন ইমেজ, ডিটেইল ও রিপোর্ট সুক্ষভাবে দেখার অভ্যাস থাকতে হবে।
  • অসাধারন যোগাযোগ দক্ষতা থাকতে হবে।
  • ক্রিটিক্যাল থিংকিং করার দক্ষতা থাকতে হবে।
  • রোগীকে যথেষ্ট সম্মান ও যত্ন করতে হবে।
  • মেডিক্যাল ও নন-মেডিক্যাল টেকনোলজি সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান থাকতে হবে।
  • চাপের মধ্যে কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • একজন রেডিওলজিস্টের কী ধরনের শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকতে হবে?

এন্ট্রি লেভেলের একজন রেডিওলজিস্ট অথবা রেডিওগ্রাফার হিসেবে যেকোনো কোম্পানিতে যোগদান করার পূর্বে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং, গণিত, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অথবা ইলেকট্রনিক্স ও ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের উপর কমপক্ষে দুই থেকে চার বছরের স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করতে হবে। ইঞ্জিনিয়ারিং ছাড়াও মেডিক্যাল, কেমিস্ট্রি, মেডিক্যাল ইথিকস, হিউম্যান অ্যানাটমি, ফার্মাকোলজি অথবা ফিজিওলজিএ উপর কমপক্ষে দুই থেকে চার বছরের কোর্স করলেও চলবে।

একজন রেডিওলজিস্টের কী ধরণের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে?

এন্ট্রি লেভেলের একজন রেডিওলজিস্ট হিসেবে যোগদান করার পূর্বে, আপনাকে রেডিওলজি টেকনিশিয়ান, চিফ রেডিওগ্রাফি টেকনোলজিস্ট, রেডিওগ্রাফার অথবা রেডিওলজিস্ট অ্যাসিস্টেন্টের উপর কমপক্ষে ২ থেকে ৩ বছরের অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে। উপরোক্ত খাতগুলো ছাড়াও মেডিক্যাল অ্যানাটমি, আলট্রাসনোগ্রাফি, মেডিক্যাল ইথিকস অথবা অ্যানালিটিক্যাল গণিতের উপর কমপক্ষে ১ থেকে ২ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

এম ইব্রাহিম হোসেন বিজয় , রেডিওলোজী এন্ড ইমেজিং বিভাগ , রাজশাহী আইএইচটি ।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: